এন্ট্রি লেভেল জব ইন্টারভিউ এর ক্ষেত্রে যে ভুলগুলো করা উচিত নয় ।

পড়াশোনা শেষ, চাকরির জন্য হন্য হয়ে ঘোরাফেরা করছেন। সারাদিন নেটের সামনে। একটার পর একটা এপ্লিকেশন করে যাচ্ছেন অনলাইনে, যেটা আপনার সাথে রিলেভেন্ট সেটাও করছেন, যেটা রিলেভেন্ট না সেটাও.. এপ্লাই অনলাইন বাটনটা দেখেই সিভি দিয়ে দিলেন। যেহেতু খরচ লাগেনা।   হঠাৎ কল এলো,,, কোন এমএনসি থেকে….স্বপ্নের কল.. আপনি কল রিসিভ করলেন;

এম এন সিঃ হ্যালো; আপনি কি জনাব শরিফ (ছদ্দ নাম)?

আপনিঃ জ্বি আমি শরিফ বলছি.. কে বলছেন?

এম এন সিঃ আমি ট্রিট ইন্টারন্যাশনাল থেকে সাহেদ (ছদ্দ নাম) বলছি।

আপনিঃ ট্রি……ট ইন্টারন্যাশনাল.. (আমতা আমতা করে চেষ্টা করেও এই কোম্পানিকে মনে করতে পারলেন না) অতঃপর বললেন, আচ্ছা বলুন;

এম এন সিঃ আপনি আমাদের এখানে জবের জন্য এপ্লিকেশন করেছিলেন..

আপনিঃ জ্বি জ্বি স্যার……

এম এন সিঃ তো আপনি কি ইন্টারভিউ দিতে ইচ্ছুক..?

আপনিঃ জ্বি জ্বি.. স্যার পোষ্টটা কি ছিলো যেনো?

এম এন সিঃ কিছুক্ষন চুপ থেকে বললেন.. ম্যানেজমেন্ট ট্রেইনি..

আপনিঃ ও আচ্ছা আচ্ছা! ঠিক আছে।

এম এন সিঃ তাহলে আগামী ২৫ তারিখ সকাল ১০ টায় আপনি আসছেন।

আপনিঃ জ্বি জ্বি.. স্যার ঠিকানাটা একটু দেন!! কিছু কিছু ক্ষেত্রে অনেকেই জানতে চায় স্যার স্যালারীটা কত হবে? স্যার কাজটা কি? উত্তরে যদি বলে মার্কেটিং, তবে আপনি আশে পাশেও নাই। কারণ মার্কেটিং আপনার ভয়। অথচ মার্কেটিং মেজর নিয়ে এমবিএ করেছেন। যাইহোক,তারা আপনাকে ঠিকানাও দিলো। আপনি ২৫ তারিখ ইন্টারভিউ দিতে গেলেন;

এই ট্রিট ইন্টারন্যাশনালটা আসলে কি কোম্পানি, তাদের কাজ কি, তাদের প্রোডাক্ট কি, বর্তমানে কোন দেশে তাদের কি অবস্থান, কিছুই জানার প্রয়োজন মনে করলেন না। গুগলে একদিন সার্চ দিলেই কিন্তু তাদের ১৪ গুষ্টির ডাটা চলে আসতো, যেহেতু এম এন সি। Continue reading এন্ট্রি লেভেল জব ইন্টারভিউ এর ক্ষেত্রে যে ভুলগুলো করা উচিত নয় ।

ইন্টারভিও বোর্ড মেম্বারদের আকর্ষণ করার সাতটি পদ্ধতি

জব পাওয়া একটি বড় ধরনের চালেঞ্জ, বিশেষ করে যখন আপনি ক্যারিয়ার শুরু করবেন। কিন্তু যদি একবার শুরু করতে পারেন তাহলে তাহলে ধাপে ধাপে উপরে (উচ্চ পর্যায়ে) চলে যেতে পারবেন। যাইহোক আমি এই পোস্টটিতে টেকনিক্যাল লেভেলে যারা কাজ করবেন তাদের সমন্ধে কিছু টিপস দিব যা আপনাকে শত শত আবেদনকারীদের ভিড় থেকে বেরিয়ে আসতে সাহায্য করতে পারে।

আপনার সিভিটি আকর্ষণীয় করুন

প্রথমত সবাই আগে আপনার সিভি দেখবে তারপর ভাল লাগলে ডাকবে, তাই আপনার জীবনবৃত্তান্তটি আকর্ষণীয় করে তুলুন। আপনার স্বপ্নের স্থানে পোঁছাতে হলে অবশ্যয় আপনাকে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। অনলাইনে অনেক সিভির টেমপ্লেট পাওয়া যায় সার্চ করুন, ভাল দেখে ডাউনলোড করুন এবং সেই অনুযায়ী তৈরি করার চেষ্টা করুন। অনেকে মনে করে ২/১ বছরের অভিজ্ঞতা লিখে দেই তাহলে হয়ত আমায় ডাকবে, আসলে তা না যারা সিভিগুলোকে যাচাই করে উনারা সিভি দেখলেই বুঝে কোন সিভিটি অভিজ্ঞতা সমপন্ন আর কোনটি নয়। তাই আমার পরামর্শ সিভিতে মিথ্যা কিছু লিখা থেকে বিরত থাকবেন।